Main Menu

পর্তুগালে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় বৈশাখী উৎসব পালিত

জহুর উল হক, লিসবন,পর্তুগাল:  গান, নৃত্য, মঙ্গল শোভাযাত্রাসহ জাঁকজমকপূর্ণ নানা আয়োজনে প্রথম বারের মতো পর্তুগালে পালিত হল ‘বৈশাখী উৎসব’। বাংলা নববর্ষ ১৪২৫ উদযাপন উপলক্ষে রবিবার ১৬ বৈশাখ ওরিয়েন্ত মিউজিয়ামে, বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবন এর উদ্যোগে দিনব্যাপী আয়োজিত এ অনুষ্ঠানটি বিপুলসংখ্যক দর্শক উপভোগ করেন।
দুই পর্বের এই অনুষ্ঠানটির প্রথম পর্বে সকাল ১০টায় বাঙগালী ঐতিহ্য অনুযায়ী অতিথিদের স্বাগত জানানো হয় এবং ১০টা ৩০ মিনিট থেকে শুরু হয় মঙ্গল শোভাযাত্রা। প্রবাসী বাঙ্গালী এবং স্থানীয় পর্তুগীজরা এ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করে । এই শোভাযাত্রাটি টাগুস নদীর তীরে অনুষ্ঠিত হয় । এর পর ‘কালার অফ বাংলাদেশ’ শীর্ষক দেশীয় পোশাক ও চিএকলা প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ ছিল আবহমান বাংলার ঐতিহ্যবাহী বিবাহ অনুষ্ঠানের নাটিকা। দুপুরে বৈশাখী বরণ, উৎসবে আগত অতিথি এবং প্রবাসীদের জন্য আয়োজন করা হয় দেশীয় পান্তা ভাত, হরেক রকমের ভর্তা, ইলিশ ভাজা আর মিস্টান্ন।
আর দ্বিতীয় পর্বে ছিল নাচ ও গানের জমজমাট আয়োজন, যা শুরু হয় সন্ধ্যা ৬টায় ওরিয়েন্ত মিউজিয়াম অডিটোরিয়ামে । বাংলাদেশ দূতাবাস লিসবন কর্তৃক আয়োজিত পহেলা বৈশাখের এ আনন্দ অনুষ্ঠানে সঙ্গীত ও নৃত্য পরিবেশন করেন বাংলাদেশী শিল্পীরা। এছাড়া দেশীয় শাড়ী, পাঞ্জাবি পোশাকের ফ্যাশন শো অনুষ্ঠিত হয় । এতে অংশনেয় পর্তুগালে অধ্যায়নরত বিভিন্ন দেশের ছাএ-ছাএী ও প্রবাসী বাংলাদেশীগন।
উক্ত অনুষ্ঠানে আগত সকল বিদেশি মেহমান বাংলাদেশি কালচার ও ঐতিয্য দেখে মুগ্ধ হয়েছেন । তারা বাংলাদেশ এমব্যাসি লিসবনকে ধন্যবাদ দিয়েছেন বিশেষ করে মেহেদী দিয়ে হাত রাঙ্গানো, শাড়ী পড়া শিখার ব্যবস্থা ও বাঙগালী  খাবার পরিবেশন করার জন্য ।

অনুষ্ঠান শেষে মান্যবর রাষ্ট্রদূত জনাব রুহুল আলম সিদ্দিক বাংলার দৰ্পণকে দেয়া এক সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে,  দেশে এবং প্রবাসে অবস্থিত সকল বাংলাদেশীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানান । আজকের অনুষ্ঠান সফল করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ জানান ।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *