Main Menu

মির্জা ফখরুলকে হটিয়ে ঠাকুরগাঁও আসনে লড়বেন শর্মিলা রহমান | বাংলারদর্পন

 

নিউজ ডেস্ক: লন্ডন থেকে বাংলাদেশে ফিরেই বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন ছোট ছেলে প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান। ২৯ মার্চ বাংলাদেশে এসে ৩০ মার্চ বিকেলে পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে দেখা করেন শর্মিলা রহমান।

জানা গেছে, বিশ্বাসঘাতকতার অভিযোগে মির্জা ফখরুলকে ধীরে ধীরে দলে নিষ্ক্রিয় করতে ঠাকুরগাঁও আসন থেকে শর্মিলা রহমানকে নির্বাচন করতে দেশে পাঠিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত প্রধান তারেক রহমান। দেশে ফিরে বিষয়টি খালেদা জিয়াকে জানাতেই তড়িঘড়ি করে কারাগারে দেখা করলেন বলে বিএনপির একটি বিশ্বস্ত সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এ বিষয়ে লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ এক নেতার সঙ্গে মুঠোফোনে আলাপ হলে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ফখরুল সাহেব বিএনপিতে ধরাশয়ী। জানি না তার বিরুদ্ধে অভিযোগগুলো সত্য কিনা। রিজভী সাহেবের অভিযোগের ভিত্তিতে তারেক ভাই ফখরুল সাহেবের বিরুদ্ধে ধীরে ধীরে অ্যাকশনে যাচ্ছেন। এর অংশ হিসেবেই শর্মিলা ভাবিকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

সূত্র জানায়, সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ, খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড নিয়ে দলীয় আন্দোলন-কর্মসূচিতে অনীহা, বিএনপিতে বিভক্তি সৃষ্টির কারণ হিসেবে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে দায়ী করে ধীরে ধীরে দলের বিভিন্ন পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হচ্ছে।

এ প্রক্রিয়ার প্রথম ধাপে দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডের পর ভারপ্রাপ্ত দলীয় প্রধান তারেক রহমানের সহযোগী হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয় যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীকে। এ নিয়ে অবাক হন বিএনপির সর্বস্তরের নেতারা। দ্বিতীয় ধাপে ২০ দলীয় জোটের সমন্বয়কারী হিসেবে ফখরুলকে সরিয়ে নজরুল ইসলাম খানকে দায়িত্ব দেয়া হয়। তৃতীয় ধাপে, কারাগারে দেখা করার অনুমতি পাওয়ার পরেও তারেক রহমানের নির্দেশে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে দেখা করেন নি খালেদা জিয়া। এবার মির্জা ফখরুলকে আরো দৃঢ় হোচট খাওয়াতেই তারেক রহমান সুপরিকল্পিতভাবে শর্মিলা রহমানকে দেশে পাঠিয়েছেন।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *