Main Menu

বিএনপিতে নতুন সমালোচনায় তারেক

 

নিউজ ডেস্ক :

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন হবার মাত্র এক মাসের মধ্যে দলীয় বিতর্কে তারেক জিয়া। দলের সিনিয়র নেতা ও তৃণমূলের মধ্যে তাঁকে নিয়ে ক্ষোভ-অসন্তোষ বেড়েই চলেছে। দলের সিনিয়র নেতারা তাঁকে নিয়ে নতুন করে সমালোচনা শুরু করেছে।

বিএনপিপন্থী ব্যবসায়ীরা তাঁকে এড়িয়ে যেতে শুরু করেছেন। লন্ডন থেকে তারেকের বিভিন্ন অনৈতিক ও মূল্যহীন সিদ্ধান্তে অতিষ্ট দলের নেতাকর্মীরা l এমনকি বেগম জিয়ার ভাই-বোন ও আত্মীয়স্বজনরাও বলছে, ‘তারেক নিষ্ঠুর ও স্বার্থপর।’

দলের পরবর্তী কর্মসূচি ও পরিকল্পনা নিয়ে টেলিফোনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে কথা বলেন তারেক জিয়া। তারেক টেলিফোনে বিএনপির জনসভায় ভাষণ দেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন। কিন্তু মির্জা ফখরুল তাঁর প্রস্তাবে সম্মত হননি। মির্জা ফখরুল তারেক জিয়াকে জানান যে, জনসভায় তাঁর ভাষণ প্রচার হলে, তৃণমূল নেতাকর্মীরা জনসভায় অংশগ্রহণ করবে না।

বিএনপির একাধিক সূত্র বলছে, তারেক এ নিয়ে দলের মহাসচিবের সঙ্গে অশোভন আচরণ করলেও মির্জা ফখরুল তাঁর অবস্থানে অনড় থাকেন। দলের মহাসচিব প্রথমে তাঁকে সামনে রেখেই দল পরিচালনা করছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে দেখা যায় তারেক রূঢ়,অশোভন এবং কর্তৃত্ব পরায়ণ।

বেগম জিয়া গ্রেপ্তারের পর তারেক জিয়ার প্রতিক্রিয়া এবং আচার আচরণে তৃণমূল ক্ষুব্ধ। খালেদা জিয়া জেলে যাওয়ার পর তাঁর মধ্যে কোনো আবেগ, উৎকণ্ঠা দেখা যায় নি। তৃণমূলের একজন নেতা বলেছিলেন, ‘আমরা মনে করেছিলাম ম্যাডাম গ্রেপ্তার হবার পর ভাইয়া নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে হলেও দেশে ফিরবেন। মায়ের পাশে দাঁড়াবেন। কিন্তু তিনি প্রতিক্রিয়াহীন।

এই সব কারণে তারেক দ্রুত তৃণমূলের আস্থা হারিয়েছেন। দলের এমন অবস্থায় তারেক যেন বিএনপির নতুন বিরোধে পরিণত হচ্ছে।  দলে ভিত্তিহীন তারেক দেশে এসে দলে সুস্থ রাজনীতি করবে এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *