Main Menu

বিএনপির সিনিয়র নেতাদের শেষ সংকেত দিয়েছে তারেক !

 

নিউজ ডেস্ক: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড দেয়ার একমাস পর মির্জা ফখরুল ও মওদুদ আহমেদসহ কয়েকজন সিনিয়র নেতা গত ৭ই মার্চ বেগম জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে গেলে তার মুক্তি ইস্যুতে বিভ্রান্তি ও সমন্বয়হীনতা সৃষ্টির প্রেক্ষিতে বেগম জিয়া মির্জা ফখরুল ও মওদুদ আহমেদকে লাস্ট ওয়ার্নিং দেন বলে জানা যায়।

এ প্রসঙ্গে কারাগারে সাক্ষাৎ করতে যাওয়া অপর এক সিনিয়র নেতার সূত্রে জানা যায়, বেগম জিয়ার কারাদণ্ড প্রাপ্তির পর পুত্র তারেক রহমান দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নিযুক্ত হলে মির্জা ফখরুল ও মওদুদ আহমেদসহ কয়েকজন নেতা তারেক রহমানের নির্দেশনার বাইরে বিভিন্ন বিষয়ে নিজের ইচ্ছেমতো কথা বলায় বেগম জিয়া ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এছাড়া বেগম জিয়ার মুক্তি প্রশ্নেও দলের তরফ হতে ভিন্ন ভিন্ন ও বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দেয়ার বিষয়েও খালেদা জিয়া মির্জা ফখরুলের কাছে জানতে চান।

জানা যায়, মির্জা ফখরুল ও মওদুদ আহমেদ আত্মপক্ষ সমর্থনে কথা বলতে শুরু করলে এক পর্যায়ে বেগম জিয়া উত্তেজিত হয়ে ওঠেন এবং ধমকের সুরে বলেন, “আমি জেলে বসেও সব খবর পাই, দল কিভাবে চলবে কারাগারে আসার আগেই তারেকের সাথে এ বিষয়ে আমার কথা হয়েছে। তার কথাই আমার কথা। তারেকের কথা যদি আপনাদের শুনতে ইচ্ছে না করে তবে বিএনপিকে নিয়ে টানাটানি করে লাভ নাই। নতুন দল করে নিজেদের ইচ্ছেমতো চালান। আর যদি বিএনপিতে থাকতে চান তবে এটাই আমার লাস্ট ওয়ার্নিং। তারেক যেভাবে বলে, রিজভীর সাথে পরামর্শ করে সেভাবে দল চালান।”

সূত্রমতে, তারেক-রিজভীপন্থীদের সাথে দলের বিভিন্ন বিষয়ে ফখরুল ও মওদুদপন্থীদের বক্তব্যের পার্থক্যের কারণে কর্মীদের মাঝে এমনকি জনমনেও বিভ্রান্তি সৃষ্টির কথা জানতে পেরে বেগম জিয়া মির্জা ফখরুল ও মওদুদ আহমেদের উপর খুবই বিরক্ত হয়ে পড়েন। এর আগেও তিনি মির্জা ফখরুল ও মওদুদ আহমেদকে এ বিষয়ে সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু তারা তা মেনে না চলায় এবার তাদেরকে লাষ্ট ওয়ার্নিং দেয়া হলো।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *