Main Menu

গণধোলাই থেকে শ্রমীককে উদ্ধার করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট :

রাজশাহীতে গণধোলাইয়ের শিকার এক মাদকসেবী শ্রমীক কে  উদ্ধার করতে গিয়ে ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

নিহত ফেরদৌস হাসান রানা (৩০) মোহনপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আবদুর রাজ্জাকের সহযোগী ও কেশরহাট পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর বিএনপি নেতা হাফিজুর রহমান বকুলের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, কেশরহাট পৌর সদরের চৌধুরী মার্কেটের দ্বিতীয়তলার একটি কক্ষ সিএনজি মালিক সমিতির কক্ষে শ্রমীক রানা মাদক ব্যবসা করতেন। ১২ ফেব্রুয়ারি রাতে মোহনপুরের কেশরহাট পৌরসভা সদরে রানাকে উদ্ধার করতে গিয়ে ছাত্রলীগ  সভাপতি আবদুর রাজ্জাকসহ তার ৫ সহযোগী গণধোলাইয়ের শিকার হন। এ ঘটনায় রানাকে আশংকাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এসময় তার মাথায় ১৫টি সেলাই দেয়া হয়। সেলাই পড়ে চোখের পাতাতেও। ভেঙে যায় ডান হাত ও পা। ওই সময় থেকেই তিনি অচেতন অবস্থায় ছিলেন।

নিহতের বাবা বলেন, আমার ছেলের ওপর অন্যায়ভাবে হামলা করা হয়েছে। আমি এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করবো।

মোহনপুর থানার ওসি আবুল কাশেম বলেন, রানার মৃত্যুর সংবাদ শুনেছি। এ ব্যাপারে এখনো কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *